Sunday, January 25, 2015

অপরিণতঃ বয়সে মজলুম আরাফাত রহমান (কোকো)এর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ এবং মাগফিরাত কামনা

বিসমিল্লাহীর রাহমানীর রাহীম
ঢাকা, ২৫শে জানুয়ারী ২০১৫।

বরাবরঃ মোহতারেমা বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপি চেয়ারপার্সন, গুলশান, ঢাকা-১২১২

অপরিণতঃ বয়সে মজলুম আরাফাত রহমান (কোকো)এর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ এবং মাগফিরাত কামনা

মোহতারেমা, আসসালামু আলাইকুম।
পিতা বা মাতার জীবদ্দশায় সন্তানের মৃত্যুকে পৃথিবীর সবচেয়ে ভারী বিষয়ের মধ্যে গন্য করা হয়। আপনার জীবদ্দশায় আপনার কনিষ্ঠ সন্তান আরাফাত রহমান (কোকো)-এর আকস্মিক ইন্তেকাল স্বভাবতঃই আপনার জন্য বিশাল ভারী ও শোকবহ। আমরা আপনার সাথে আন্তরীক ভাবে সহমর্মীতা প্রকাশ করছি।

আমরা তাঁর রূহের মাগফিরাতের জন্য হযরত নবী করীম (সাঃ)এর শেখানো সুন্নাত তরিকায় ফাতেহা পাঠ ও দোয়া করেছি। আমরা তাঁর স্ত্রী-সন্তানদের নিরাপত্তা ও কল্যাণের জন্যও দোয়া করি।

বিচার-বহির্ভুতভাবে বন্দী অবস্থায় তাঁর উপর যে জুলুম হয়েছিল তার দায়ভার শুধু সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরই নয় বরং রাষ্ট্রেরও।  তিনি বিখ্যাত পিতা-মাতার সন্তান বিধায় বিষয়টি গুরুতর এমন নয়, বরং কোন অখ্যাত মানুষও যাতে বিচার-বহির্ভুতভাবে বন্দী অবস্থায় মজলুম না হয় তার যথাযথ প্রচেষ্টা চালানো প্রয়োজন।

মাআসসালাম।

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের পক্ষে

শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর, আমীরে শরীয়ত।


মুহাম্মদ জাফরুল্লাহ খান, মহা-সচীব।


Wednesday, January 21, 2015

প্রেসবিজ্ঞপ্তি ২২শে জানুয়ারী ২০১৫ : ফ্রান্সের শার্লে হেবডো পত্রিকায় পূনরায় হযরত মুহাম্মদ (সাঃ), ইসলাম ও মুসলমানদের উপহাস করে কার্টুন ছাপানোর ঘটনা চরম উষ্কানীমূলক


প্রেসবিজ্ঞপ্তি ২২শে জানুয়ারী ২০১৫

ফ্রান্সের শার্লে হেবডো পত্রিকায় পূনরায় হযরত মুহাম্মদ (সাঃ), ইসলাম ও মুসলমানদের উপহাস করে কার্টুন ছাপানোর ঘটনা চরম উষ্কানীমূলক

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত হযরত মওলানা শাহ আতাউল্লাহ এবং মহাসচিব মওলানা মুহাম্মদ জাফরুল্লাহ খান নিন্মোক্ত যৌথ বিবৃতি দিয়েছেনঃ-

“ফ্রান্সের শার্লে হেবডো পত্রিকায় পূনরায় হযরত মুহাম্মদ (সাঃ), ইসলাম ও মুসলমানদের উপহাস করে কার্টুন ছাপানোর ঘটনা চরম উষ্কানীমূলক।  বাক স্বাধীণতার এই অপব্যাবহারের বিরুদ্ধে পোপ এবং ব্রিটিশ এমআই৬ এর বিদায়ী গোয়েন্দা প্রধাণের দায়িত্বশীল মন্তব্য কিছুটা হলেও আশাব্যাঞ্জক।

মুসলমানদের ধর্মীয় বিশ্বাসে একের পর এক আঘাত হেনে উষ্কানি দেওয়ার যে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে সে ব্যাপারে আমাদের সজাগ থাকতে হবে।  মুসলমানদের জংগী সাজিয়ে খতম করার ফাঁদে কিছুতেই উত্তেজিত হয়ে পা দেয়া চলবে না।

যারাই যে ধর্মের ভেক ধরে এসব অপকর্ম করুক না কেন তাদের প্রকৃত পরিচয় হচ্ছে তারা নাস্তিক। পশ্চিমা নাস্তিক ও তাদের অনুসারীদের অশুভ ততপরতার বিরুদ্ধে ধর্মপ্রান মুসলমানদের তো বটেই, অন্যান্য ধর্মের নিষ্ঠাবান অনুসারীদেরও সংগে নিয়ে দৃঢ় প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।”

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের পক্ষে

সুলতান মহিউদ্দীন, 
প্রচার সম্পাদক
মোবাইলঃ ০১৯১৬২২২২০৪

Office: 9630035