Wednesday, May 15, 2013

হযরত আল্লামা আহমদ শফী (দাঃবাঃ)-কে উপদেষ্টা করে ইসলামি দলগুলোর নেতৃবৃন্দ-এর যৌথ বিবৃতি


16 May, 2013 :  ইসলামি দলগুলোর নেতৃবৃন্দ গতকাল এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন:-

 

-হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে ইতোমধ্যেই দেশের মসজিদে মসজিদে কুনুতে নাজেলা চালু হয়েছে। জালিম শাহির জুলুম নির্যাতন ইসলামের দুশমনদের ইসলাম নির্মূলনীতি বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত দেশের সব মসজিদে কুনুতে নাজেলা অব্যাহত থাকবে।

 

-নরপশুরা ৫ মে পবিত্র কুরআন মজিদে আগুন দিয়ে মুসলিম উম্মাহর কলিজায় আগুন ধরিয়েছে- ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের বিরুদ্ধে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিতে হবে।

 

-বিগত ৫ মে হেফাজতের নেতাকর্মীদের ওপর হামলায় পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষভাবে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

 

-লাশ কোথায় গুম করা হলো তার সঠিক জবাব দিতে হবে। আলেম-উলামাদের লাশের খোঁজে যখন তাদের আত্মীয়স্বজনরা বিভিন্ন হাসপাতালে ও থানায় খোঁজখবর নিতে যাচ্ছেন তখন তাদেরও গণগ্রেফতার করা হচ্ছে। অথচ সরকারের পক্ষ থেকে নির্লজ্জভাবে বলা হচ্ছে ৫ই মে’র গণহত্যার শিকার যারা তাদের আত্মীয়স্বজন কোথায়?

 

-সংবিধানে আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস পুনঃস্থাপন,

  কুরআন-সুন্নাহ বিরোধী এবং নারীর প্রতি অবমাননাকর নারীনীতি সংশোধন,

  ধর্মহীন জাতীয় শিক্ষানীতি সংশোধন,

  ইসলাম ও মহানবী সা:কে অবমাননাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি,

  মাদরাসা বন্ধের চক্রান্ত বন্ধ

সর্বোপরি দেশ ধর্মহীন ও অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করার চক্রান্ত বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলতে থাকবে।

 

বিবৃতিতে  স্বাক্ষর করেনঃ-

 

ইসলামি দলগুলোর উপদেষ্টা আল্লামা আহমদ শফী,

 

রাবেতা আলম আল ইসলামীর স্থায়ী সদস্য ও সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের সভাপতি মাওলানা মুহিউদ্দীন খান,

 

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের প্রধান আমিরে শরিয়ত  ও ইসলামি দলগুলোর আহ্বায়ক মাওলানা শাহ আহমদুল্লাহ আশরাফ,

 

জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সভাপতি শাইখ মাওলানা আবদুল মোমিন,

 

খেলাফত মজলিসের আমির ও সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্য মাওলানা মোহাম্মাদ ইসহাক,

 

ইসলামী ঐক্যজোটের সভাপতি ও সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী,

 

সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্য মাওলানা যাইনুল আবেদীন,

 

ইসলামি দলগুলোর সদস্যসচিব ও বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা জাফরুল্লাহ খান,

 

সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মহিউদ্দীন রব্বানী,

 

সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ যুগ্ম-মহাসচিব ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী,

 

ফরায়েজি আন্দোলনের আমির মাওলানা আবদুল্লাহ মোহাম্মাদ হাসান, সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের ঢাকা মহানগরী সভাপতি মাওলানা আহমাদ আলী কাসেমী,

 

মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা লুৎফর রহমান,

 

মিরসরাইয়ের পীর সাহেব মাওলানা আ: মোমেন নাছেরী,

 

হক্কানী পীর মাশায়েখ পরিষদের সভাপতি শাহতলীর পীর মাওলানা আবুল বশর ও মহাসচিব শর্ষিনার পীর মাওলানা শাহ আরিফ বিলাহ সিদ্দিকী,

 

টেকেরহাটের পীর সাহেব মাওলানা কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী,

 

জাতীয় ফতোয়া বোর্ড সভাপতি প্রফেসর ড. মাওলানা ইহইয়ার রহমান প্রমুখ।

 

বিজ্ঞপ্তি ।